Home » Featured » অবশেষে ডেভিড ক্যামেরন ৩৯৭ ভোটে জয়ী হলেন-যে কোন সময়ে বিমান হামলা(ভিডিও)

অবশেষে ডেভিড ক্যামেরন ৩৯৭ ভোটে জয়ী হলেন-যে কোন সময়ে বিমান হামলা(ভিডিও)

279

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদঃ একটানা ১০ ঘন্টারও বেশী সময় পার্লামেন্টে উত্তপ্ত বিতর্ক শেষে রাত ১০টায় ভোটাভুটিতে ডেভিড ক্যামেরন জয়ী হলেন। সিরিয়ায় আইএস ঘাটিতে বিমান হামলা শুরুর ব্যাপারে পার্লামেন্টের অনুমোদনের জন্য বুধবার দিনব্যাপী বিতর্কে এমপিরা অংশ গ্রহণ করেন। লেবার দলের ৬৭ এমপি পক্ষে ভোট দেন। সব মিলিয়েডেভিড ক্যামেরনের এয়ার স্ট্রাইকে যাওয়ার জন্য ৩৯৭ ভোট পড়ে।বিপক্ষে ভোট পড়ে ২২৩টি। ক্যামেরন মেজরিটি ভোট লাভ করেন ১৭৪টি।

 

ভোট প্রাপ্তির ফলাফলের পর ফরেন সেক্রেটারি ফিলিপ হ্যামন্ড বলেন, আজ ব্রিটেন নিরাপদ হলো- কারণ এমপিরা পার্লামেন্টে অনুমোদন দান করেছেন। আর জেরেমি করবিন বলেছেন পরাজয়ে তিনি ডিসএপয়ন্টেড হয়েছেন।

 

এর আগে সিরিয়া বিমান হামলাকে কেন্দ্র করে বিরোধী দলীয় নেতা জেরেমি করবিন তুমুল বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। তিনি বরাবরের মতোই যুদ্ধ বিরোধী অবস্থান নেন। তার দলের অধিকাংশ ছায়া কেবিনেট সদস্য ডেভিড ক্যামেরনের সমর্থনে বিমান হামলার পক্ষে অবস্থান নেন। বিমান হামলা ইস্যুকে কেন্দ্র করে লেবার দল কার্যত দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়ে। জেরেমি করবিন নিজের বক্তব্যে অটল থাকলেও প্রচন্ড চাপের মুখে শেষ পর্যন্ত দলীয় এমপিদের স্বাধীন ভাবে ভোট প্রদানের অনুমতি প্রদান করেন।

 

বিতর্ক শুরুর একদিন আগে জেরেমি করবিনের যুদ্ধ বিরোধী অবস্থানের প্রেক্ষিতে ডেভিড ক্যামেরন জেরেমি করবিনের সমালোচনা করতে গিয়ে বলেন, তিনিসন্ত্রাসীদের প্রতি সহানুভুতিশীল। এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে পার্লামেন্টে বিতর্কে লেবার দলীয় সদস্যরা ডেভিড ক্যামেরনকে মন্তব্য প্রত্যাহার ও দুঃখ প্রকাশের আহবান জানান। ক্যামেরনের এই মন্তব্যে ব্রিটিশ মিডিয়ায় ও পার্লামেন্টের বাইরে ঝড় বয়ে যায়। যে কারণে ভোটাভুটিতে নাটকীয় কিছু ঘটে যেতে পারে বলেও অনেক কানা ঘুষা চলছিলো দিনভর- ওয়েস্ট মিনিস্টারে। তবে শেষ পর্যন্ত সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে পার্লামেন্টে ডেভিড ক্যামেরন সিরিয়ায় বিমান হামলায় যেতে ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ট ভোটে পাস করেন।

 

এর আগে ২০১৩ সালে পার্লামেন্টে ভোটাভুটিতে ডেভিড ক্যামেরন হেরে গিয়েছিলেন। সেই কারণে ক্যামেরন ও ডাউনিং ষ্ট্রীটের মধ্যে এবারের ভোটাভুটি নিয়ে টোরি দল মেজরিটি হওয়া সত্যেও লেবার দলীয় ভোটের ব্যাপারে সন্দেহ ও কৌতুহল যেন যাচ্ছিলোনা।শেষ পর্যন্ত সেটার অবসান হলো। অবশ্য ভোটাভুটিতে ক্যামেরন যে ম্যান্ডেট লাভ করতে যাচ্ছেন, সেটা স্পষ্ট হচ্ছিলো- তখন থেকেই, যখন লেবার দলের মেম্বাররা বক্তব্য দেয়া শুরু করেছিলেন।

লাইভ ষ্ট্রিম-ডিবেট

ধারণা করা হচ্ছে, আজ শেষ প্রহরে কিংবা ভোরের আলো ফুটার আগেই অথবা যেকোন সময়ে ব্রিটেন রাফ-টর্ণাডো সিরিয়ায় আইএস ঘাটি বলে খ্যাত রাকাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সের সাথে বিমান হামলায় শুরু করবে।

House of Commonsএর আগে সকাল ১০টার কিছু পরে ডাউনিং ষ্ট্রীট এক বিজ্ঞপ্তিতে এখন থেকে আইএস/আইএসআইএল কে দায়েশ নামে অভিহিত করা হবে বলে জানানো হয়।

নারী/এক্সক্লূসিভ/সিরিয়া/আইএস/সেলিম আহমেদ/নভেম্বর/২০১৫

৩ Comments

Add a Comment

Your email address will not be published.