Home » Featured » ট্যাক্স ক্রেডিট নিয়ে ওসবর্ন প্রচন্ড চাপের মধ্যে-কনজারভেটিভের রিপোর্ট

ট্যাক্স ক্রেডিট নিয়ে ওসবর্ন প্রচন্ড চাপের মধ্যে-কনজারভেটিভের রিপোর্ট

204

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদঃ চ্যান্সেলর জর্জ ওসবর্ন আগামী এপ্রিল থেকে ট্যাক্স ক্রেডিট কাটের যে ঘোষণা বিগত সামার বাজেটে দিয়েছিলেন, সময় যতো গড়াচ্ছে শুধু থিংক ট্যাংকের ভিতরে নয়, খোদ কনজারভেটিভ সরকারের ভিতর থেকে অসবর্নের এই ট্যাক্স ক্রেডিট কর্তনের বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠছে। যদিও প্রাইম মিনিস্টার ডেভিড ক্যামেরন বিবিসি টেলিভিশনে এক সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন ট্যাক্স ক্রেডিট ইউ টার্নের সুযোগ নেই। তার চ্যান্সেলর ওসবর্ণ আরো এক ধাপ এগিয়ে। তিনি কারও কথাই শুনছেননা। লেবার দল থেকেও আপত্তি উঠছে।জর্জ ওসবর্নের সাফ কথা তিনি তা থেকে সরে আসবেননা। এমনি অবস্থায় খোদ পার্টির ভিতর থেকে দাবী উঠছে ট্যাক্স ক্রেডিট নিয়ে পূণরায় ভাববার। কেননা কনজারভেটিভের নিজস্ব রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে গতকাল। তাতে বলা হয়েছে এর ফলে লন্ডনের ৫০০ মিলিয়ন পাউন্ড গরীব পরিবার থেকে কর্তন হবে।

 

 

হাউস অব কমন্সের লাইব্রেরী সূত্রের বরাত দিয়ে এক পরিসংখ্যান প্রকাশিত হয়েছে, তাতে বলা হয়েছে, লন্ডনের ৬০০,০০০ পরিবারের শিশুরা এই বাজেটের ফলে সরাসরি এফেক্টেড হবেন।কেননা, সাধারণ এবং নিম্ন আয়ের মানুষেরা মূলতঃ তাদের কম বেতনের সারপ্লাস হিসেবে এই ট্যাক্স ক্রেডিট দিয়ে তাদের পরিবার ও শিশুরা বেঁচে আছেন। এমতাবস্থায় এটা বাতিল হয়ে গেলে তাদের সবচাইতে বেশী ক্ষতিগ্রস্থ ও অভাবের মধ্যে পড়বেন। ওসবর্ন তার বাজেটের মাধ্যমে ট্যাক্স ক্রেডিটের মাধ্যমে এই গরীব পরিবার ও শিশুদের কাছ থেকে অর্থ ছিনিয়ে নিচ্ছেন।

 

 

অথচ আজকের কমন্সের ডিবেটে লেবার দলের মোশন পরাভূত হয়েছে ৩১৭ ও ২৯৫ ভোটের ব্যবধানে। এমপিরা লেবারের মোশনের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন। লেবার ওসবর্নকে এদিক বিবেচনা করে আরো নমনীয় হওয়ার মোশন শেষ পর্যন্ত পরাজিত হয়।

 

 

তবে লেবার দল, লিবডেম আর সিনিয়র টোরিদের সহায়তায় ওসবর্নের এই পরিকল্পনার বিরুদ্ধে এমপিরা জোরালো চাপের মাধ্যমে নমনীয় করার চেষ্ঠা করবেন বলে এক সূত্রে জানা গেছে। তাদের মিলিত এই ডিরেইল প্ল্যানের সাথে আছেন বরিস জনসন।লন্ডন মেয়র প্রকাশ্যেই ওসবর্নকে রি-থিংক(পূণরায় ভাবনার) করার আহবানও জানিয়েছেন।তারা পিটিশন সহ সাইনিং ক্যাম্পেইনে যাচ্ছেন।

 

Seema_Malশ্যাডো সেক্রেটারি সীমা মালহোত্রা নিজের আসনের জনগনের কথা উল্লেখ করে বলেছেন এর ফলে তার আসনের ১৩,৫০০ ওয়ার্কিং ফ্যামিলি সরাসরি সংক্ষুব্ধ হওয়ার সাথে দারিদ্রের মধ্যে পড়বেন যার ফলে ১৭.৫ মিলিয়ন পাউন্ড জ্বালানি শক্তি ক্রয়ের ক্ষমতা হারাবেন বলে তিনি দাবী করেছেন।

 

লিব ডেমের টিম ফ্যারন বলেছেন, আমরা বুঝতেছি বুক কিপিং সঠিক এবং ব্যালেন্স রাখার জন্য সরকার এ পথ বেছে নিয়েছে, কিন্তু গরীব পরিবার ও শিশুদের কাছ থেকে অর্থ কেড়ে না নিয়েও বিকল্প ব্যবস্থায় করা যায়।

 

কমন্স লাইব্রেরির রেকর্ড বলছে, শুধু মাত্র লন্ডনের ৫৯৭,০০০ বাসাবাড়ি মিলিয়ন শিশু সহ এই ট্যাক্স ক্রেডিট বর্তমানে পেয়ে থাকেন– তারা হয় কাজের মাধ্যমে অথবা জব সিকার্স না চেয়ে কম বেতনের আয়ের মাধ্যমে পেয়ে থাকেন। সেজন্যে বরিস বলছেন, সকলকেই এ ব্যাপারে ভাবতে হবে এবং কোনভাবেই সাধারন এবং ওয়ার্কিং লোকদের ও পরিবারের সাথে আনফেয়ার করা বাস্তব সম্মত নয়। তাই এ বিষয়ে আরো ভাবতে হবে এবং ওসবর্নকেও চিন্তা করতে হবে পূণরায়।

 

আজকের কমন্সের বিতর্কের পর ওসবর্নের নো-ইউটার্ন মানেই হলো আগামী মাস থেকেই পরিবার চিঠি পাবেন ট্যাক্স ক্রেডিট কিভাবে তাদের প্রাত্যহিক জীবনে প্রভাবিত করবে কতো গভীরভাবে।

 

কনজারভেটিভের ভিতরকার অপর এক রিপোর্টে জানা গেছে, ট্যাক্স ক্রেডিট ইস্যু নিয়েই আগামী নির্বাচনে কনজারভেটিভ পার্টি সরাসরি ৭১টি আসন হারাবে।

 

Salim932@googlemail.com

20th October 2015, London.

Add a Comment

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!