Home » কলাম » মুক্তিসেনানী ইফতেখার হোসেন শামীম তোমাকে লাল সালাম-

মুক্তিসেনানী ইফতেখার হোসেন শামীম তোমাকে লাল সালাম-

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ,যুক্তরাজ্য থেকে-

অকাল প্রয়াত নেতা,প্রিয় ইফতেখার হোসেন শামীম ভাই, সূর্য যখন তার লাল বর্ণিল আলোকচ্ছটা ছাড়িয়ে,প্রখর রৌদ্র তাপ ছড়ানোর আয়োজনে ব্যাস্ত ছিলো,পৃথিবী যখন তার রাতের আয়োজন সাঙ্গ করে দিনের কোলাহলময় কর্মব্যাস্ততার জানান দিয়ে চারদিক সবে মাত্র মুখরিত করে চলছিলো,শহর ও শহরতলির কোন মা যখন তার বাচ্চাকে কোলে কিংবা রিকসা করে স্কুলে নিতে ব্যাতিব্যাস্ত,ঠেলাওয়ালা,দিনমজুর যখন তার কর্মময় জীবনের সূচনা করতে প্রতিদিনের মতো উদ্যত,সাংবাদিক বন্ধুরা যখন সারারাত কর্মব্যাস্ত থেকে সকালের আরাম-আয়েসে কিংবা চায়ের সাথে ঝাল-মুড়ি কিংবা আলু-পরটা আপ্যায়নে ব্যাস্ত,মসজিদের মুসল্লিরা যখন ভোরের প্রার্থনা করে সবে মাত্র বিছানায় আরামে ঢলে পড়েছিলেন, ঠিক এমনি সময়ে,এমনি এক কর্মব্যাস্ত,বর্ণিল  সকালে তুমি যখন ঢাকা থেকে গ্রীন লাইনে ফিরছিলে,প্রিয় জন্ম ভূমি,দুটি পাতা একটি কুড়ি,হজরত শাহজালালের প্রিয় আধ্যাত্নিক তোমার এই চির-চেনা সিলেট শহরে তোমাকে বহন করে দ্রুত নিয়ে চলছিলো গ্রীন লাইনের সেই যাত্রীবাহি গাড়ীটি,চোখে-মুখে একরাশ স্বপ্ন-উচ্ছাস,ভালোবাসা,প্রিয়তমা স্ত্রীর চির সুন্দর মুখ আর প্রিয় সন্তানের আদরে আহ্ললাদে আটকানো প্রিয় ড্যাডি ডাক শুনার উদগ্র বাসনা হ্রদয়ে লালন করে,হাজারো মুজিব সৈনিকের লাখো হ্রদয় নিংড়ানো ভালোবাসা প্রতিনিয়ত সঙ্গী করে তুমি যখন তোমার প্রিয় সিলেটের একেবারে সন্নিকটে,দয়ামির থেকে বিশ মিনিটের দুরত্তে অতিক্রম করে চলেছিলে,বিপরিত দিক থেকে আসা ঘাতক ট্রাক তোমার জীবন প্রদীপ চির দিনের জন্য নিভিয়ে দিয়ে গেলো,সাথে দমিয়ে দিলে আরো ৬টি তাজা প্রাণ—-বড় কষ্ট আর বেদনাবিদূর,আহত,ভগ্ন হ্রদয়ে,চোখের জলে দুই চোখ ভিজেয়ে প্রিয় সিলেটের প্রিয় জনগণ তোমাকে বিদায় দিলো,শাহজালালের কোলে তোমাকে চিরদিনের জন্য শায়িত করে রাখলো,সিলেটের অমিত,সাহসী,মুক্তিসংগ্রামী,আওয়ামীলিগের প্রাণপ্রিয় এই জাদরেল নেতা প্রিয় ইফতেখার শামীম ভাই,তোমাকে লাল সালাম,বিদায়,চির বিদায়,প্রিয় শামীম ভাই।আল্লাহ তোমাকে জান্নাত বাসী করুন-এই আমাদের অযুত মিলিত প্রার্থনা।

০২)১৯৮৬ সাল,এরশাদ বিরুধী আন্দোলনের দামামা তখন ভেজে চলছে সর্বত্র,এদিকে সিলেটের মধুবন আন্দোলনও তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছিলো,জনতার বাধ ভাঙ্গা সেই আন্দোলনে তখনকার সামরিক শাসক এই পিছু,এই সামনে,এবং তার কায়েমি স্বার্থবাদি মহল পিছু হঠতে শুরু করতেছিলো,এমনি সময়,এক সন্ধ্যায় আন্দোলন এবং নেতৃত্ব ও সংগঠণ -এই ত্রিমার্তৃক এক আলোচনার সূত্র ও দিকনির্দেশনা নিতে ছোটভাই,তৎকালিন ছাত্রলীগের একনিষ্ট কর্মি,নেতা প্রিয় মুখ শফিউল আলম নাদেল ও সৈয়দ তাহমিম সহকারে আব্দুস জহহুর সমাভিবহারে সিলেটের পুরানলেনে সাক্ষাত মরহুম ইফতেখার হোসেন শামীমের সাথে।হ্রদয়ে রক্তক্ষরণ হয়ে বেজে চলছে,প্রিয় নেতা তোমার সাথে সেই দূর্লভ সাক্ষাতের মুহুর্তটি,সেদিন দেখেছি তোমার ভিতরে অসাধারণ এক সাংগঠণিক দক্ষতা ও ক্ষমতা,যা আজকের যুগে বড় বিরল,কর্মীদের প্রতি তোমার স্নেহ ও আন্তরিকতা আমাকে সেদিন দারুনভাবে মুগ্ধ করেছিলো,সেদিনকার সেই পরিচয় থেকে তোমার রাজনীতি না করা স্বত্তেও যখনই তুমি ঢাকা যেতে শত ব্যাস্ততার মাঝেও তুমি আমাদের খোজ নিয়ে আসতে,ঝড়-বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের চত্ত্বরে সেদিন তোমার আগমণ এবং আমাদের বিশেষত সিলেটের সেই সব ছেলেদের খোজখবর নিতে,তোমার ভিতরের সেই মমত্ব,সেই দরদ দেখে সেদিন সকলেই অভিভূত হয়েছিলাম।

০৩) আমাদের মুক্তিযুদ্দ্বে তোমার অসামান্য অবদান তোমাকে করে তুলেছিলো আমাদের সকলের কাছে আরো গৌরবান্বিত।দেশ মার্তৃকাকে হায়েনাদের কবল থেকে উদ্দ্বার করেই তুমি ক্ষান্ত থাকনি,স্বাধীনদেশকে গড়ে তুলতে বঙ্গবন্ধুর ডাকে তুমি ঝাপিয়ে পড়েছিলে তোমার প্রিয় সংগঠণ আওয়ামীলীগকে গড়ে তুলতে।সারাটা জীবন তুমি অকাতরে বিলিয়ে দিয়ে গেছ তোমার গড়া সংগঠণ সিলেট আওয়ামীলীগ এবং তার অগণিত নেতা- কর্মীদের ভালোবেসে,অন্যদের মতো নিজের আখের গোছাতে ব্যাতিব্যাস্ত থাকনি।চাইলে হতে পারতে সিলেটের একচ্ছত্র নেতা,প্রাণ-পুরুষ,সে সুযোগও তোমার ছিলো,কিন্তু মানুষের প্রতি ছিলো তোমার অগাধ বিশ্বাস ও ভালোবাসা,হ্রদয়ে রক্তে বয়ে নিয়ে চলেছিলে পুর্বপুরুষের গৌরবময় গাথা,তাইতো তুমি  তথাকথিত গড্ডালিকা প্রবাহে গা ভাসিয়ে দেওনি,এই খানেই তোমার ছিলো বিশেষ মহত্ত্ব।

০৪) আমাদের দূর্ভাগ্য,জীবিত থাকাকালিন সময়ে তোমার মতো নেতাদের প্রাপ্য সম্মানটুকু তোমার গড়া সংগঠটি তোমাকে কখনো দিতে শিখেনি,যেমন করে প্রাপ্য সম্মানটুকু দেওয়া হয়নি মুক্তিযুদ্দ্বের আরো এক বীর সেনানি তোমারই নেতা মরহুম আব্দুর রাজ্জাককে। আওয়ামীলীগের এই দীনতা,এই কপটতা জাতিকে বড় বেশি মাত্রায় ভাবিয়ে তুলে,একই সাথে অনেক ক্ষতিরও কারণ হয়ে আছে।

গুড ভাই প্রিয় ইফতেখার হোসেন শামীম ভাই,তুমি বেচে আছো,বেচে থাকবে,বাঙ্গালীর মননে,হ্রদয়ে,সিলেটবাসীর চিরন্তন নাড়িছেড়া একরাশ উচ্ছ্বাস অনবরত নিরন্তর ভালোবাসা নিয়ে।

Salim932@googlemail.com

12th May 2012,UK.

Please follow and like us:

Add a Comment

Your email address will not be published.

Follow by Email
YouTube
Pinterest
LinkedIn
Share
Instagram
error: Content is protected !!