Home » Featured » ব্রিটেনের সিরিয়ায় বিমান হামলার বিরুদ্ধে লন্ডনে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত(ভিডিও)

ব্রিটেনের সিরিয়ায় বিমান হামলার বিরুদ্ধে লন্ডনে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত(ভিডিও)

213

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদঃ শনিবার ২৮শে নভেম্বর ২০১৫ ব্রিটিশ প্রাইম মিনিস্টার এর সরকারি ভবন ১০নং ডাউনিং ষ্ট্রীটের সামনে প্রায় ৪,০০০ এর মতো লোক একত্রিত হয়ে, হাতে নানা প্ল্যাকার্ড সহকারে ব্রিটেনের সিরিয়ায় এয়ার স্ট্রাইকে অংশ গ্রহণের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানান। আজকের বিক্ষোভ স্টপ দ্য ওয়ার কোয়ালিশনের ব্যানারে হলেও লেবার দলীয় শ্যাডো ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপম্যান্ট মিনিস্টার ডায়ান অ্যাবোট এমপি, একটর মার্ক রায়ল্যান্স, মিউজিশিয়ান ব্রায়ান এনোর মতো নামী দামী সেলেব্রেটিও অংশ নেন এবং বিক্ষোভ সমাবেশে যুদ্ধ বিরোধী বক্তব্য দেন।

প্যারিসে হামলার দুই সপ্তাহ পরে স্টপ দ্য ওয়ার কোয়ালিশনের ব্যানারে সিরিয়ায় বিমান হামলায় ব্রিটেনের অংশ গ্রহণের প্রতিবাদে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হলো। অর্গেনাইজাররা ফেস বুক পেজের মাধ্যমে ধারণা দিয়েছিলেন ৮,০০০ এর মতো লোক আজকের বিক্ষোভে অংশ গ্রহণ করবেন। তবে শেষ পর্যন্ত চার হাজারের মতো বিক্ষোভকারী অংশ নেন।

protestlonডেভিড ক্যামেরন গত সপ্তাহেই পার্লামেন্টে বক্তব্য দিতে গিয়ে এমপিদের কাছে আবেদন করেছেন, তাকে ভোট দিতে। তিনি ইঙ্গিতও দিয়েছেন, আইএস ধবংসে ব্রিটেন সিরিয়ায় আইএস ঘাটিতে বিমান আক্রমন শুরু করবে শিগগির।

এরই মধ্যে লেবার দলীয় নেতা জেরেমি করবিন যুদ্ধের বিরুদ্ধে নিজের অবস্থান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ডেভিড ক্যামেরন বিমান আক্রমনের ব্যাপারে ব্রিটেনের জনগনকে কনভিন্স করতে ব্যর্থ হয়েছেন।

অপরদিকে এই ইস্যুতে লেবার দল মূলত দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছে। অবস্থা বেগতিক দেখে লেবার নেতা জেরেমি করবিন গ্রাসরুট লেভেলের লেবার দলের নেতা কর্মীদের নিজ নিজ দলীয় এমপিদের যুদ্ধের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে এবং জেরেমি করবিনের যুদ্ধ বিরোধী ভুমিকা উপস্থাপনের যৌক্তিকতা তুলে ধরার জন্য ইমেইল করেছেন । জেরেমি করবিনের যুদ্ধ বিরোধী ইমেইজ লেবার দলের গ্রাসরুট লেভেলের সদস্য ও তরুণদের কাছে বেশ গ্রহণযোগ্য এবং নেতৃত্ব নির্বাচনে তারাই মূলত ভুমিকা রেখেছেন বেশী।সেকারণে জেরেমি করবিন নিজ শ্যাডো কেবিনেট ও সেন্ট্রাল লেবার দলের দুই ভাগে বিভক্তিতে তৃণমূলের দ্বারস্থ হয়েছেন।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে আগামী সপ্তাহেই সিরিয়ায় বিমান হামলার ব্যাপারে ভোটাভুটি হতে পারে। ডাউনিং ষ্ট্রীট সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছে।

peaceloveআজকের এই বিক্ষোভ লন্ডন ছাড়াও সোয়ানসি, মানচেস্টার, মিল্টঙ্কিন্স, কভেন্ট্রি, নরইউচেও ছোট ছোট ভাগে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

 

বিক্ষোভ চলাকালীন সময়ে বিক্ষোভকারীরা যে সব প্ল্যাকার্ড বহন করেন, তার মধ্যে ডোন্ট বম্ব সিরিয়ালেখা ছিলো। একজন বিক্ষোভকারী- যিনি ক্রয়ডন থেকে এসেছিলেন, তার বয়স ৩৩, নাম ডেভিড বেল, তিনি বলেন, আমি এখানে এসেছি ডেভিড ক্যামেরনের সিরিয়ায় বোম্বিং প্ল্যানের বিরুদ্ধে আমার প্রতিবাদ জানাতে। এই কারণে, এই বোম্বিং ইরাকে কাজ হয়নি, কাজ হয়নি আফগানিস্তানে, লিবিয়ায়- বরং আমাদের রাস্তায় আরো বেশী উগ্রবাদ ঘাটি গেড়েছে, জনগনের মধ্যে আরো বেশী মাত্রায় বিদ্বেষ ও এংগার রোপিত হয়েছে।

অনেক তরুণ তরুণী ছাড়াও বয়স্ক অনেকেই প্রটেস্টে ছিলেন, যাদের অধিকাংশ ইরাক লিবিয়া ওয়ারের বিরুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেছিলেন। সেজন্যে তারা জানালেন, এসেছেন এই বোম্বিং এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে। বোম্বিং এর সলিউশন নয় বলে জানালেন।

নারী/নিউজ/ব্রিটেন/সিরিয়া আক্রমন/প্রতিবাদ/নভেম্বর/২০১৫

Please follow and like us:

Add a Comment

Your email address will not be published.

Follow by Email
YouTube
Pinterest
LinkedIn
Share
Instagram
error: Content is protected !!