Home » Featured » সিরিয়া মিলিটারি একশন প্রশ্নে লেবার নেতৃত্ব ঝুঁকির মুখে!(ভিডিও)

সিরিয়া মিলিটারি একশন প্রশ্নে লেবার নেতৃত্ব ঝুঁকির মুখে!(ভিডিও)

216

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদঃ কমন্স সভায় ডেভিড ক্যামেরন সিরিয়া এয়ারস্ট্রাইকে ব্রিটেনের অংশ গ্রহণের ব্যাপারে তাকে সমর্থন দিতে এমপিদের আহবান জানিয়েছেন। ডেভিড ক্যামেরন পার্লামেন্টকে ইঙ্গিত দিয়েছেন, আইএসআইএল, আইএস বা দায়েশ ধবংসে সিরিয়ায় শীগ্রই ব্রিটেন এয়ার স্ট্রাইকে যাচ্ছে।

পার্লামেন্টে বক্তৃতা দেয়ার সময় তিনি কনজারভেটিভ, লেবার সহ সকল দলের সমর্থন আশা করেন।

এদিকে, ব্রিটেনের সিরিয়ায় মিলিটারি একশন নিয়ে জেরেমি করবিন এখনো সঠিক মনে করছেননা। তিনি বলেছেন, সিরিয়ায় ব্রিটেনের এয়ার স্ট্রাইক ব্রিটেনের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দেবেনা। মিলিটারি একশন আইএস ধবংসে সমাধান মনে করছেননা। জেরেমি করবিন মূলত এক আদর্শের উপর বেইস করে বক্তব্যে অটল। অপরদিকে জেরেমি করবিনের শ্যাডো কেবিনেটের অনেকেই ডেভিড ক্যামেরনে সিরিয়া বোমা হামলার পক্ষপাতি। বিশেষ করে প্যারিসে আইএসের বর্বরোচিত হামলার পর থেকে এমপিদের মনোভাব পরিবর্তন হতে থাকে।

 

জেরেমি করবিনের শ্যাডো কেবিনেটের ফরেন সেক্রেটারি হিলারি বেন কার্যত জেরেমি করবিনের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আমরা এমন এক কমপেলিং বিতর্কের মধ্যে আছি।

 

ডাউনিং ষ্ট্রীট সূত্রে জানা গেছে পার্লামেন্টে সিরিয়ায় আইএসের উপর বিমান হামলার ব্যাপারে ভোটাভুটির জন্য ফ্রেম ওয়ার্ক নিয়ে ব্যস্ত। তারপরেও ডেভিড ক্যামেরন শিবির এখনো আশ্বস্থ হতে পারছেননা। ২০১৩ সালের অভিজ্ঞতার আলোকে এবং মাত্র কিছুদিন আগে পার্লামেন্টে এবসোলট সমর্থন পেতে ব্যর্থতাই ক্যামেরনের সেই শঙ্কা বাড়িয়ে দিয়েছে। যদিও টোরি পার্টির বিদ্রোহীরা এখন আর তেমন সরব নন। কেননা, বিদ্রোহীদের মধ্যে ফরেন অফিস সিলেক্ট কমিটির সিনিয়র ক্রিসপিন ব্ল্যান্ট যিনি ২০১৩ সালে বিপক্ষে ভোট দিয়েছিলেন, তিনি ডেভিড ক্যামেরনকে সমর্থনের ইঙ্গিত দিয়েছেন। ১০ নাম্বার ডাউনিং ষ্ট্রীট কিছুটা নার্ভাস হলেওক্রিসপিন ব্ল্যান্টের সমর্থন তাদের জন্য প্লাস পয়েন্ট সন্দেহ নাই।

 

davidক্যামেরন লেবার গ্রুপের সমর্থনেরব্যাপারে এখনো একশতভাগ নিশ্চিত হতে পারছেননা। কেননা, আজকের কমন্সের বিতর্কের পর জেরেমি করবিন শ্যাডো কেবিনেটের সদস্যদের কাছে চিঠি লিখেছেন, তিনি কেন বিমান হামলা সমর্থন করছেন না। অন্য এক বিশ্বস্থ সূত্র নিশ্চিত করেছেন, জেরেমি করবিন পার্লামেন্টে বক্তৃতা দেয়ার পরে পার্লামেন্টকে পাশ কাটিয়ে লেবার দলীয় সদস্যদের নিয়ে মিটিং করার চেষ্টা করেন।

 

পার্লামেন্ট ভোটাভুটিতে হুইপ তিন লাইন ভোটাভুটিতে সমর্থন হলে জেরেমি করবিন এর নেতৃত্ব হবে প্রশ্নের মুখে। আবার তিন লাইন এর কম হলে হিলারি বেন যেখানে বলেছেন কম্পেলিং আরগুম্যান্টস- সেক্ষেত্রে পার্টি সদস্যরা হয়ে পড়বেন দুই ভাগে বিভক্ত। সেক্ষেত্রে দুই শিবিরকে(পক্ষকে) একটা সমঝোতায় পৌছতে হবে। যদি সমঝোতায় পৌছতে ব্যর্থ হন- তাহলে নেতা করবিনকে সদস্যদের ফ্রি-ভোট দিতে বাধ্য ছাড়া উপায় নেই।কেননা থ্রি-লাইন হুইপ ভোট ব্যর্থতা মানেই রেসিগনেশনের দিকে ঠেলে দেয়া। সেক্ষেত্রে পার্টি মেম্বারদের(সংসদ সদস্য) ভোট দেয়ার জন্য ফ্রি দিতে হবে।

 

corbyn dowellজেরেমি করবিন এখন প্রায় এক ঘরে হয়ে যাচ্ছেন।কিন্তু তার সমর্থক গ্রুপ পিএলপিমনে করছে, জেরেমি করবিনের পেছনে এখনো শ্যাডো এমপিরা আছেন। তবে জানা গেছে, ডায়ান অ্যাবোট, জন ট্রিকেট, নিয়া গ্রিফিথ, জন ম্যাকডোনেল জেরেমি করবিনকে সমর্থন করছেন, যদিও ম্যাক ডোনেল প্রেসের সামনে কোন মন্তব্য করেননি। জেরেমি করবিন মনে করছেন গ্রেটার প্রোপরশানালি তার পিএলপি গ্রুপে ও শ্যাডো কেবিনেটে সমর্থন রয়েছে।

 

hilary ben mpঅপরদিকে হিলারি বেনের সাথে আছেন ডেপুটি লিডার টম ওয়াটসন, শ্যাডো লর্ড চ্যান্সেলর লর্ড ফালকনার অব থর্ণটন, মাইকেল ডাফার, লুসি পাওয়েল। এই গ্রুপ প্রকাশ্যে এখন ডেভিড ক্যামেরনের এয়ার স্ট্রাইকে যাওয়া সমর্থন করছেন।

 

নারী/এক্সক্লূসিভ/লেবার/টোরি/স্প্লিট/জেরেমি করবিন/সেলিম আহমেদ/ নভেম্বর/২০১৫salim ahmed

(writer:selim )

Please follow and like us:

Add a Comment

Your email address will not be published.

Follow by Email
YouTube
Pinterest
LinkedIn
Share
Instagram
error: Content is protected !!